সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১


পূর্ণ সূর্যগ্রহণ দেখল লাখ লাখ মানুষ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত:৯ এপ্রিল ২০২৪, ১৪:৪০

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

সৌরজাগতিক বিস্ময়ের সাক্ষী হলেন মেক্সিকো, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডাসহ উত্তর আমেরিকার লাখ লাখ মানুষ। সোমবার ওই অঞ্চল থেকে পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ দেখা গেছে। যদিও পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল আকাশে মেঘ থাকতে পারে।

এসোসিয়েট প্রেসের খবরে বলা হয়েছে, সূর্যগ্রহণ উপলক্ষ্যে এত ভিড় এর আগে উত্তর আমেরিকা আগে দেখেনি। টেক্সাস ও অন্যান্য জায়গায় জনবহুল পথ ও মাঝদুপুরে চার মিনিটের বেশি সময় অন্ধকার নেমে আসার যে পূর্বাভাস ছিল, তার ফলেই এই অতি উৎসাহ।

ব্রিটেনের গথাম থেকে আসা ক্রিস লমাস বলেন, 'বৃষ্টি হোক বা রোদ বাকিদের সঙ্গে অভিজ্ঞতাটা ভাগ করে নেওয়াই আসল।' ডালাসের বাইরে এক রিসোর্টে আছেন তিনি। এই রিসোর্টে তিল ধারণের জায়গা নেই।

সোমবারের পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণে চাঁদ সূর্যের সামনে এসে একে ঢেকে দেয়। সূর্যের বহির্ভাগের বাতাবরণ বা করোনা অংশটি কেবল দেখা যায়। এর ফলে যে গোধূলি পরিবেশের সৃষ্টি হয় তাতে পাখি ও অন্যান্য জীব কিছুটা বিচলিত হয়ে পড়ে। এই মাপের পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ যুক্তরাষ্ট্র দেখতে পাবে আরও ২১ বছর পর।

পূর্ণগ্রাসের পথ ছিল আনুমানিক ১১৫ মাইল (১৮৫ কিলোমিটার) বিস্তৃত। এই বিস্তীর্ণ পথে অনেক বড় শহর যেমন ডালাস, ইন্ডিয়ানাপোলিস, ক্লিভল্যান্ড, বাফেলো, নিউইয়র্ক ও মন্ট্রিল রয়েছে। এই পথে আনুমানিক প্রায় সাড়ে চার কোটি মানুষের বাস এবং ২০০ মাইলের (৩২০ কিলোমিটার) মধ্যে আরও কয়েক কোটি মানুষ রয়েছেন।

নাসা ও বহু বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞকে সূর্যের এই পরিক্রমা-পথ বরাবর নিযুক্ত করা হয়। যাতে গবেষণামূলক রকেট, আবহাওয়া সংক্রান্ত বেলুন উৎক্ষেপণ করা যায় এবং পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো যায়।

আপনার মতামত দিন:

(মন্তব্য পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।)
আরো পড়ুন

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

নামাজের সময়সূচি

ওয়াক্ত সময়সূচি
ফজর ০৩:৫১ ভোর
যোহর ১১:৫৫ দুপুর
আছর ০৪:৩৪ বিকেল
মাগরিব ০৬:৩৯ সন্ধ্যা
এশা ০৭:৫৯ রাত

সোমবার ২০ মে ২০২৪