রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১


শুরু হচ্ছে ই-ট্র্যাফিকিং

সড়কে অনিয়ম করলেই স্বয়ংক্রিয় ভিডিও মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত:১৩ জুন ২০২৪, ১৮:৩৫

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় শুরু হচ্ছে ই-ট্র্যাফিকিং। সড়কে শৃঙ্খলায় বাধা সৃষ্টি করলে, প্রচলিত আইনের ব্যত্যয় ঘটিয়ে ট্র্যাফিক শৃঙ্খলা বিঘ্ন ঘটানো ও ড্রাইভিং লাইসেন্স সংক্রান্ত অপরাধে ভিডিও মামলা করার নির্দেশ দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্র্যাফিক বিভাগ।

ভিডিও প্রসিকিউশনের ক্ষেত্রে সিসিটিভি ফুটেজ, ক্যামেরায় ধারণকৃত ভিডিও, বডিওর্ন ক্যামেরার ফুটেজ এবং অন্যান্য উৎস হতে প্রাপ্ত ভিডিও ফুটেজ যথোপযুক্ত প্রমাণাদি ভিডিও প্রসিকিউশন প্রদানে ব্যবহার করা যাবে। ধারণকৃত ভিডিও বিশ্লেষণ করে হবে স্বয়ংক্রিয় মামলা।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (ট্র্যাফিক) মো. মনিবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক স্মারক চিঠি ইস্যু করা হয়েছে। তাতে প্রত্যেকটি ট্র্যাফিক বিভাগে এ ব্যাপারে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

চিঠিতে ট্র্যাফিক-রমনা, ট্র্যাফিক-মতিঝিল, ট্র্যাফিক-ওয়ারী, ট্র্যাফিক-লালবাগ, ট্র্যাফিক-তেজগাঁও, ট্র্যাফিক-মিরপুর, ট্র্যাফিক-গুলশান ও ট্র্যাফিক-উত্তরা বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) ডিএমপির ই-ট্র্যাফিক প্রসিকিউশন সিস্টেমে ভিডিও প্রসিকিউশন এবং ড্রাইভিং লাইসেন্সের বিপরীতে প্রসিকিউশন প্রদান প্রসঙ্গে এ নতুন নির্দেশনা দেওয়া হয়।

তাতে বলা হয়েছে, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্র্যাফিক বিভাগে ই-ট্র্যাফিক প্রসিকিউশন সিস্টেমে স্ব-স্ব ট্র্যাফিক বিভাগের ক্যামেরায় ধারণকৃত ভিডিও ফুটেজ ও ছবির বিপরীতে প্রসিকিউশন প্রদানের জন্য ডিএমপি কমিশনার নির্দেশনা প্রদান করেছেন। সেই নির্দেশনার আলোকে ই-ট্র্যাফিক সফটওয়্যার ভিডিও প্রসিকিউশন এন্ট্রি এবং ভিডিও প্রসিকিউশন ভিউ নামে দুটি ট্যাব সংযুক্ত করা হয়েছে। ওই দুটি ট্যাবে ইনপুটকৃত তথ্যের ভিত্তিতে প্রসিকিউশন সংক্রান্ত চিঠি স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রিন্ট হবে।

চিঠিতে বলা হয়, ভিডিও প্রসিকিউশনের ক্ষেত্রে সিসিটিভি ফুটেজ, ক্যামেরায় ধারণকৃত ভিডিও, বডিওর্ন ক্যামেরার ফুটেজ এবং অন্যান্য উৎস হতে প্রাপ্ত ভিডিও ফুটেজ যথোপযুক্ত প্রমাণাদি ভিডিও প্রসিকিউশন প্রদানে ব্যবহার করা যাবে।

চিঠিতে আরও উল্লেখ্য করা হয়, ডিএমপি অধ্যাদেশ ১০২ ধারা অনুযায়ী প্রসিকিউশন যানবাহনের মালিক/চালক এর হাজিরকরণ এবং সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ ও সড়ক পরিবহন বিধিমালা-২০২২ মোতাবেক ‘কর্তৃপক্ষ মোটরযান ও ড্রাইভিং লাইসেন্স সংক্রান্ত অপরাধের জন্য ডিজিটাল পদ্ধতিতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে মামলা দায়ের ও নিষ্পত্তি করার ব্যবস্থা রয়েছে’।

নির্দেশনার আলোকে পজ ডিভাইসে ড্রাইভিং লাইসেন্সের বিপরীতে প্রসিকিউশনের ব্যবস্থা রয়েছে। এমতাবস্থায়, ডিএমপির ই-ট্রাফিক প্রসিকিউশন সিস্টেমে ভিডিও প্রসিকিউশন এবং ড্রাইভিং লাইসেন্সের বিপরীতে প্রসিকিউশন প্রদানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা হলো।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ডিএমপি অতিরিক্ত কমিশনার (ট্র্যাফিক) মুনিবুর রহমান ঢাকা পোস্টকে বলেন, এই সিদ্ধান্ত ছিল করোনাকালের আগে। করোনার কারণে সড়কে তো যান চলাচলই সীমিত ছিল। করোনায় জাতীয় শুদ্ধাচার নীতির কারণে অনেক সিদ্ধান্তই বাস্তবায়ন সম্ভব হয়নি। এখন সেই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের নির্দেশনা দিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার।

তিনি বলেন, আমরা প্রস্তুতি নিতে বলেছি। ট্র্যাফিক বিভাগগুলো মাঠ পর্যালোচনাও করবেন। দেখি যত দ্রুত সম্ভব এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন করা হবে।

আপনার মতামত দিন:

(মন্তব্য পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।)
আরো পড়ুন

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

নামাজের সময়সূচি

ওয়াক্ত সময়সূচি
ফজর ০৩:৫৬ ভোর
যোহর ১২:০৫ দুপুর
আছর ০৪:৪৪ বিকেল
মাগরিব ০৬:৫২ সন্ধ্যা
এশা ০৮:১৪ রাত

রবিবার ২১ জুলাই ২০২৪